নানা উদ্যোগের পর অবশেষে পাটখড়ির ছাই বা ‘জুট স্টিক চারকোল’ রপ্তানির জট খুলেছে। এখন প্রতি মাসেই চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পাটখড়ির ছাই রপ্তানি হচ্ছে। ফলে বিদেশ থেকে আসছে মূল্যবান রপ্তানি আয়। জট কেটে যাওয়ার পর এ খাতে নতুন বিনিয়োগে কারখানা গড়ে তুলছেন উদ্যোক্তারা। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্যে দেখা যায়, গত বছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত প্রতিমাসে গড়ে ৬০ হাজার ডলার মূল্যের পাটখড়ির ছাই রপ্তানি... বিস্তারিত

" /> নানা উদ্যোগের পর অবশেষে পাটখড়ির ছাই বা ‘জুট স্টিক চারকোল’ রপ্তানির জট খুলেছে। এখন প্রতি মাসেই চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পাটখড়ির ছাই রপ্তানি হচ্ছে। ফলে বিদেশ থেকে আসছে মূল্যবান রপ্তানি আয়। জট কেটে যাওয়ার পর এ খাতে নতুন বিনিয়োগে কারখানা গড়ে তুলছেন উদ্যোক্তারা। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্যে দেখা যায়, গত বছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত প্রতিমাসে গড়ে ৬০ হাজার ডলার মূল্যের পাটখড়ির ছাই রপ্তানি... বিস্তারিত

" /> নানা উদ্যোগের পর অবশেষে পাটখড়ির ছাই বা ‘জুট স্টিক চারকোল’ রপ্তানির জট খুলেছে। এখন প্রতি মাসেই চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পাটখড়ির ছাই রপ্তানি হচ্ছে। ফলে বিদেশ থেকে আসছে মূল্যবান রপ্তানি আয়। জট কেটে যাওয়ার পর এ খাতে নতুন বিনিয়োগে কারখানা গড়ে তুলছেন উদ্যোক্তারা। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্যে দেখা যায়, গত বছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত প্রতিমাসে গড়ে ৬০ হাজার ডলার মূল্যের পাটখড়ির ছাই রপ্তানি... বিস্তারিত

" />