All Share Bazar News

All Bangla Share / Stock / Share Market DSE, CSE News

Home » Article » News Archive » খবর - আইপিও
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-11-14 06:48:58

জেনেক্স ইনফোসিসের আইপিও চাঁদা গ্রহণ শুরু রোববার

সম্প্রতি প্রাথমিক গণ প্রস্তাবে অনুমোদন পাওয়ার কোম্পানি জেনেক্স ইনফোসিসের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আবেদনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১৮ নভেম্বর রোববার কোম্পানির আইপিও চাঁদা গ্রহণ শুরু হবে। যা চলবে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬৫৬তম কমিশন সভায় কোম্পানিকে আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়। কোম্পানিটিকে পুঁজিবাজারে ২ কোটি সাধারণ শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি শেয়ারের অভিহিত মূল্য ১০ টাকা। এ টাকা কোম্পানিটি কল সেন্টারের ব্যবসা সম্প্রসারণ, আংশিক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিও খরচে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির ভারিত গড় হারে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ১.৮৯ টাকা। পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) ১৩.৯৬ টাকা। জেনেক্স ইফোসিসের একটি সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান আছে। আর এ কোম্পানিতে জেনেক্স ইনফোসিসের ৯৯.৯৯ শতাংশ শেয়ার হোল্ডিং রয়েছে। সাবসিডিয়ারি এ কোম্পানির হিসাব নিরীক্ষা সহ জেনেক্স ইনফোসিসের সমন্বিত ভারিত গড় হারে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ২.০২ টাকা এবং পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া শেয়া্র প্রতি সমন্বিত প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) ১৩.৯৭ টাকা। কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড। [...]বিস্তারিত...
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-11-12 12:19:15

দীর্ঘমেয়াদী অর্থের উৎস হতে পারে শক্তিশালী পুঁজিবাজার

একটি দেশের শক্তিশালী পুঁজিবাজারে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণে দীর্ঘমেয়াদী অর্থের উৎস হতে পারে বলে মনে করেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন। একই সঙ্গে বলেন,শেয়ার ব্যবসায় কোন বিনিয়োগকারীকে কেউ মুনাফা করিয়ে দেবে না। এছাড়া কারও ক্ষতি হলেও তা কেউ লাঘব করে দেবে না। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীকেই তার পুঁজি সংরক্ষনের দায়িত্ব পালন করতে হবে। যার জন্য বিনিয়োগকারীদের জ্ঞানের বিকল্প নেই। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের জন্য বিএসইসি বিনিয়োগ শিক্ষা বিষয়ক একটি কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন। সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিএসইসির নিজস্ব কার্যালয়ে এই বিনিয়োগ শিক্ষা কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মশালাটি যৌথভাবে আয়োজন করেছে বিএসইসি ও ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্টস ফোরাম (সিএমজেএফ)। কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএসইসির কমিশনার হেলাল উদ্দিন নিজামী, স্বপন কুমার বালা এফসিএমএ, খন্দকার কামালুজ্জামান, বিএসইসির ইডি ফারহাদ আহমেদ, মাহবুবুল আলম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্টস ফোরামের সভাপতি হাসান ইমাম রুবেল, সেক্সেটারি মনির হোসেন, সাবেক সভাপতি জিয়াউর রহমানসহ বিভিন্ন টিভি চ্যানেল, প্রিন্টিং পত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকার  সাংবাদিকবৃন্দ।এতে মূল পবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএসইসির পরিচালক রেজাউল করিম। খায়রুল হোসেন বলেন, বিনিয়োগ শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হল জ্ঞানভান্ডার তৈরী করা। যাতে বিনিয়োগকারীরা তাদের পুঁজির সংরক্ষন ও মুনাফা করতে পারে। যাতে বিনিয়োগকারীরা নিজেই শেয়ার বেচা-কেনার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তিনি বলেন, কমিশন ডিসক্লোজার ভিত্তিতে একটি কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন দেয়। এক্ষেত্রে ইস্যু ম্যানেজার ও নিরীক্ষক সংশ্লিষ্ট কোম্পানির বিষয়ে সব ঠিক আছে বলে জানানোর পরে কমিশনের কিছু করার থাকে না। কারন কমিশন সরেজমিনে ওই কোম্পানির আর্থিক হিসাবের সত্যতা যাছাই করতে পারে না। আর এমনটি করতে গেলে আইপিও অনুমোদনে ৩ বছর সময় লেগে যাবে। বর্তমানে প্রত্যেকটি কোম্পানির ওয়েবসাইটে প্রসপেক্টাস প্রকাশ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে বলে জানিয়েছেন খায়রুল হোসেন। এক্ষেত্রে সাংবাদিকেরা ওই প্রসপেক্টাসে প্রদত্ত তথ্য নিয়ে রিপোর্ট করতে পারেন। এক্ষেত্রে কোন কোম্পানির প্রসপেক্টাসের সঙ্গে বাস্তবতার গরমিল পাওয়া গেলে, আইপিওতে আবেদনের আগ মুহূর্তেও তা বন্ধ করে দেওয়া হবে। আইপিও অনুমোদন পাওয়া কোম্পানি কাছে চাদাঁ না পেয়ে একটি গ্রুপ আদালতে রিট করে বলে জানান বিএসইসি চেয়ারম্যান। এদেরকে প্রতিহত করার জন্য সাংবাদিকদের কাছে আহ্বান করেছেন তিনি। খায়রুল হোসেন বলেন, আইপিওতে সঠিক দর পায় না বলে দীর্ঘদিন ধরে উদ্যোক্তাদের অভিযোগ ছিল। যার আলোকে বুক বিল্ডিং পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। এক্ষেত্রে যোগ্য বিনিয়োগকারীরা সংশ্লিষ্ট কোম্পানির তথ্য বিচার বিশ্লেষণ করে দর নির্ধারন করে। কিন্তু এরমধ্যেও কোম্পানি ও যোগ্য বিনিয়োগকারীরা যোগসাজোশ করতে শুরু করে। যা প্রতিরোধে যোগ্য বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশের পরিবর্তে সর্বোচ্চ ২ শতাংশ শেয়ারে দর প্রস্তাব করার সংশোধনী করা হয়েছে। এরপরেও যদি যোগ্য বিনিয়োগকারীরা কারসাজি করে, তাহলে কমিশনের অসহায়ত্ব প্রকাশ ছাড়া কিছুই করার থাকবে না। আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কেউ কেউ শেয়ারবাজারে অস্থিতিশীলতা তৈরী করতে চাইতে পারে বলে মনে করেন বিএসইসি চেয়ারম্যান। যাতে বিএসইসি নিয়মিত সার্ভেলেন্সের মাধ্যমে নজড়দারি করছে। এক্ষেত্রে লেনদেনে কোন ধরনের অনিয়ম হচ্ছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্টস ফোরামের (সিএমজেএফ) সভাপতি হাসান ইমাম রুবেল বলেছেন,বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) শেয়ারবাজারের রেগুলেটর হলেও সাংবাদিকেরা সুপার রেগুলেটর। সেই সাংবাদিকদের তথ্য প্রাপ্তিতে বাধা দিয়ে শেয়ারবাজারে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা সম্ভব না। তাই তথ্য সংগ্রহে সাংবাদিকদের বিএসইসিতে প্রবেশাধিকার বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, কর্মশালার মাধ্যমে সাংবাদিকদেরকে শিক্ষিত করে গড়ে তুললেই হবে না। তাদের তথ্যের প্রাপ্তিতে অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। কারণ সাংবাদিকদের আকাঙ্খা তথ্য। [...]বিস্তারিত...
pujibazar.com
Published On - 2018-11-12 10:25:08

সরেজমিনে আর্থিক সত্যতা যাচাই করতে গেলে আইপিও অনুমোদনে ৩ বছর লেগে যাবে: বিএসইসি চেয়ারম্যান

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: ডিসক্লোজার ভিত্তিতে একটি কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি)। এক্ষেত্রে ইস্যু ম্যানেজার ও নিরীক্ষক সংশ্লিষ্ট কোম্পানির বিষয়ে সব ঠিক আছে বলে জানানোর পরে কমিশনের আর কিছু করার থাকে না। কারণ কমিশন সরেজমিনে ওই কোম্পানির আর্থিক হিসাবের সত্যতা যাচাই করতে পারে না। আর এমনটি করতে গেলে আইপিও অনুমোদনে […] The post সরেজমিনে আর্থিক সত্যতা যাচাই করতে গেলে আইপিও অনুমোদনে ৩ বছর লেগে যাবে: বিএসইসি চেয়ারম্যান appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-11-8 11:09:59

এডিএনের কাট-অফ প্রাইস ৩০ টাকা

এডিএন টেলিকমের কাট-অফ প্রাইস ৩০ টাকা। অর্থাৎ ৩০  টাকা পর্যন্ত বিডিংয়ে যোগ্য বিনিয়োগকারীদের জন্য নির্ধারিত ৩৫ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার টাকার শেয়ার বিক্রি সম্পন্ন হয়েছে। আজ বিডিংয়ের শেষদিন কাট-অফ প্রাইস ৩০ টাকা হয়েছে। এই সময় এডিএন টেলিকমের শেয়ারে ৬০০জন বিডার অংশগ্রহণ বা বিড করেছেন। আইপিও বুকবিল্ডিং আইন অনুযায়ী যোগ্য বিনিয়োগকারীদের জন্য নির্ধারিত টাকার শেয়ার বিডিংয়ে সর্বোচ্চ শেয়ার দর থেকে ক্রমান্বয়ে নীচের দিকে যে শেয়ার দরে বিক্রি সম্পন্ন হবে সে দরে কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণ হবে। ৭২ ঘন্টায় এডিএনের শেয়ারে ৬০০জন বিডার অংশগ্রহণ বা বিড করেছেন। এরমেধ্যে ২৫ জন ৩০ টাকা বিড করেছেন। সর্বোচ্চ ৪৫ টাকায় দুইজন বিড করেছেন। সবচেয়ে বেশি ১৫৯জন বিডার ১৬ টাকায় বিড করেছেন। কাট-অফ প্রাইস তথা যে দামে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য সংরক্ষিত কোটার শেয়ার বিক্রি শেষ হবে, সেই দামের ১০ শতাংশ কমে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা শেয়ার কিনতে পারবেন। অর্থাৎ ৩০ টাকার ১০ শতাংশ কমে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ২৭ টাকায় কোম্পানিটির শেয়ার পাবেন। এর আগে গত ১৪ আগস্ট বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কোম্পানিটির বিডিংয়ের অনুমাদন দেয়। এডিএন টেলিকম শেয়ারবাজার থেকে ৫৭ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এর মধ্যে বিডিংয়ে যোগ্য বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ ৩৫ কোটি ৬২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এই বরাদ্দকৃত টাকার উপরে বিডিংয়ের মাধ্যমে নির্ধারিত হবে কাট-অফ প্রাইস। কোম্পানিটি বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ারবাজার থেকে ৫৭ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। যা দিয়ে কোম্পানিটি ভৌত কাঠামো উন্নয়ন, ডাটা সেন্টার স্থাপন, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করা হবে। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজম্যান্ট। [...]বিস্তারিত...
pujibazar.com
Published On - 2018-11-8 11:27:29

এডিএন টেলিকমের কাট-অফ প্রাইস ৩০ টাকা: বিএসইসি অনুমোদন দিলেই ১০% কমে শেয়ার পাবেন সাধারণরা

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া এডিএন টেলিকম লিমিটেডের শেয়ার দর নির্ধারণে শুরু হওয়া ৭২ ঘন্টার বিডিং শেষ হয়েছে। আর এতে কোম্পানিটির কাট-অফ প্রাইস বা শেয়ার দর ৩০ টাকা নির্ধারিত হয়েছে। এখন নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) অনুমোদন দিলেই এর থেকে ১০ […] The post এডিএন টেলিকমের কাট-অফ প্রাইস ৩০ টাকা: বিএসইসি অনুমোদন দিলেই ১০% কমে শেয়ার পাবেন সাধারণরা appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
pujibazar.com
Published On - 2018-10-30 06:51:49

শিগগিরই লেনদেন শুরু কাট্টলি টেক্সটাইলের: আইপিও শেয়ার বিওতে জমা

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: বস্ত্র খাতের কাট্টলি টেক্সটাইল লিমিটেডের  লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসেবে জমা হয়েছে। কোম্পানিটি সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে।  সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র মতে, কাট্টলি টেক্সটাইল লিমিটেডের আইপিও লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার সিডিবিএলের মাধ্যমে আজ মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) বিনিয়োগকারীদের নিজ নিজ […] The post শিগগিরই লেনদেন শুরু কাট্টলি টেক্সটাইলের: আইপিও শেয়ার বিওতে জমা appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-16 09:30:47

ইন্দো-বাংলার লেনদেনের তারিখ নির্ধারণ

পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনকারী প্রতিষ্ঠান ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের লেনদেনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। কোম্পানিটির লেনদেন আগামী ১৮ অক্টোবর, বুধবার শুরু হবে। ওইদিন কোম্পানিটি দুই স্টক এক্সচেঞ্জে ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ডিএসইতে কোম্পানিটির ট্রেডিং কোড হবে “IBP”। আর কোম্পানি কোড হবে ১৮৪৯৪। গত ৪ অক্টোবর কোম্পানিটির লটারিতে বরাদ্দপ্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে। এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির লটারির ড্র অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। কোম্পানির আইপিও আবেদন গত ৯ আগষ্ট শুরু হয়, যা শেষ হয় ১৬ আগস্ট। এছাড়া গত ১৬ জুলাই ইন্দোবাংলার আইপিওর সম্মতিপত্র পায় কোম্পানিটি। এর আগে উচ্চ আদালত কোম্পানিটির আইপিও স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে। ন্যাশনাল ব্যাংকের সঙ্গে কোম্পানির ঋণ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের পর এই সম্মতিপত্র পায় কোম্পানিটি। কোম্পানিটির ৪ জন পরিচালক ঋণ খেলাপি হওয়ায় ন্যাশনাল ব্যাংকের পক্ষ থেকে বরিশালের অর্থ ঋণ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। এতে কোম্পানির আইপিও আবেদনে ৬ মাসের জন্য স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছিল। এর আগে গত বছরের ৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬১৩ তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়। ইন্দো-বাংলা ফার্মা আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে এ অর্থ উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকায় অবকাঠামো নির্মাণ, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিও সংক্রান্ত খাতে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৬ হিসাব বছর শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২.৬২ টাকা। শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১১.৬৩ টাকা। উল্লেখ্য, কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে এএফসি ক্যাপিট্যাল, ইবিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং সিএপিএম অ্যাডভাইসরি লিমিটেড। অর্থসূচক/এসএ/   [...]বিস্তারিত...
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-11 13:12:50

প্রাইমারি মার্কেট লাভজনক

পুঁজিবাজারে এখনো প্রাইমারি মার্কেট লাভজনক বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার বালা। ‘বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ’ আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাজাধানীর একাত্তর হোটেলে সেমিনারটি আয়োজন করে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশন (বিএমবিএ)। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি নাসির উদ্দিন চৌধুরী। আর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাধারন সম্পাদক খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদ। স্বাপন কুমার বালা বলেন, প্রাইমারি মার্কেটে অবিশ্বাস্য ক্যাপিটাল গেইন করা যায়। যা একটি কোম্পানির লেনদেনের প্রথমদিনেই অর্জন সম্ভব হয়। এক্ষেত্রে সাধারনত ৩ মাস সময় লাগে। তবে এটাকে কমিয়ে আনার জন্য কমিশন কাজ করছে। তিনি বলেন, দেশে ৫৫-৬০টি মার্চেন্ট ব্যাংক বা ইস্যু ম্যানেজার থাকলেও হাতেগোনা কয়েকটি প্রতিষ্ঠান প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে ইস্যু আনছে। প্রত্যেকটি মার্চেন্ট ব্যাংকের আইপিও’র জন্য ইস্যু জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক হলেও অনেকে তাও করে না। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞতার অভাবে ঘুরেফিরে কয়েকটি মার্চেন্ট ব্যাংক ইস্যু আনছে। স্বপন কুমার বালা বলেন, উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যের উপর কোম্পানির ভালো-মন্দ নির্ভর করে। তাই বিনিয়োগের আগে উদ্যোক্তাদের সর্ম্পক্যে জেনে নেওয়া উচিত। কারন উদ্যোক্তাদের অসৎ উদ্দেশ্যের কারনে একটি গ্রুপের সবচেয়ে ভালো কোম্পানিটিও বাজারে এসে খারাপ হয়ে যায়। আর দূর্বল কোম্পানিগুলো ভালো হয়ে যায়। ২০১০ সালে পুঁজিবাজারে ধ্বসের পেছনে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের অরাজকতা অন্যতম কারন উল্লেখ করে তিনিবলেন, যদিও বিষয়টি নিয়ে তেমন আলোচনা হয়নি বা কেউ বলেনি। তবে ওইসময় প্লেসমেন্টে শেয়ার বিক্রয় নিয়ে নানা অরাজকতা হয়েছে। এমনও হয়েছে অনেকে টাকা দিয়ে পরে প্লেসমেন্টের শেয়ার পায়নি এবং যে পরিমাণ পাওয়ার কথা ছিল, তা পায়নি। এক প্রশ্নের জবাবে বালা বলেন, বার্ষিক সাধারন সভায় (এজিএম) দাবি নিয়ে কথা বলা শেয়ারহোল্ডারের মৌলিক অধিকার। যদি এটা সম্ভব না হয়, তাহলে শেয়ারহোল্ডারদের আদায় করে নিতে হবে। তাও না পারলে কমিশনে অভিযোগ করতে হবে। এর আলোকে কমিশন ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। নাসির উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দেশে প্রায় ৬০টি মার্চেন্ট ব্যাংক আছে। আর আরজেএসসিতে প্রায় আড়াই লাখ কোম্পানির রেজিষ্ট্রেশন নেওয়া আছে। কিন্তু তারপরেও বছরে মাত্র ১০-১২টি কোম্পানি বাজারে আসে। এক্ষেত্রে আবার ১টি কোম্পানির বাজারে আসতে ৩-৪ বছর সময় লাগে। তিনি বলেন, এবার বিশ্বে ৮৪টি দেশ ‘বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ’ উদযাপন করছে। যা বাংলাদেশেও করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বিনিয়োগকারীদেরকে শিক্ষিত ও সচেতন করা। যাতে তারা সঠিক বিনিয়োগ করতে পারে এবং ক্ষতিগ্রস্থ না হয়। লোভ ও আতঙ্ক থেকে বিনিয়োগকারীদের দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিএমবিএ’র ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ। তাহলে পুঁজিবাজার থেকে মুনাফা অর্জন করা সম্ভব বলে মনে করেন তিনি। [...]বিস্তারিত...
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-10 02:49:20

সিলভা ফার্মার লেনদেন আজ

সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা প্রতিষ্ঠান সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের লেনদেন আজ (১০ অক্টোবর) বুধবার শুরু হবে। দুই স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানিটি ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ডিএসইতে কোম্পানিটির ট্রেডিং কোড হবে “SILVAPHL”। আর কোম্পানি কোড হবে ১৮৪৯৩। গত ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির লটারিতে বরাদ্দপ্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে। এর আগে কোম্পনিটি ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে। কোম্পানির লটারির ড্র গত ৩০ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৯ জুলাই থেকে কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল। যা চলে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। বিএসইসির ৬৪৭তম কমিশন সভায় সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু করবে কোম্পানিটি। আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয়, কারখানার ভবন নির্মাণ, ঋণ পরিশোধ এবং গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা শূন্য ৩ পয়সা। উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড ও এসবিএল ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। [...]বিস্তারিত...
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-9 08:30:32

সিলভা ফার্মার লেনদেন কাল শুরু

সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা প্রতিষ্ঠান সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের লেনদেন আগামীকাল ১০ অক্টোবর, বুধবার শুরু হবে। ওইদিন দুই স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানিটি ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ডিএসইতে কোম্পানিটির ট্রেডিং কোড হবে “SILVAPHL”। আর কোম্পানি কোড হবে ১৮৪৯৩। গত ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির লটারিতে বরাদ্দপ্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে। এর আগে কোম্পনিটি ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে। কোম্পানির লটারির ড্র গত ৩০ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৯ জুলাই থেকে কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল। যা চলে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। বিএসইসির ৬৪৭তম কমিশন সভায় সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু করবে কোম্পানিটি। আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয়, কারখানার ভবন নির্মাণ, ঋণ পরিশোধ এবং গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা শূন্য ৩ পয়সা। উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড ও এসবিএল ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।       [...]বিস্তারিত...
pujibazar.com
Published On - 2018-10-9 05:44:57

বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাখ্যান করলেই দুর্বল কোম্পানি তালিকাভুক্তির সুযোগ পেত না

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: দুর্বল কোনো কোম্পানি যদি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হতে চাইলে বিনিয়োগকারীদের উচিত এ ধরনের কোম্পানিকে প্রত্যাখ্যান করা। এটি হলে দুর্বল কোম্পানি তালিকাভুক্তির সুযোগ পেত না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার অধ্যাপক হেলাল উদ্দীন নিজামী। রাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টসের (ইউল্যাব) অডিটোরিয়ামে গতকাল সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশ […] The post বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাখ্যান করলেই দুর্বল কোম্পানি তালিকাভুক্তির সুযোগ পেত না appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-9 04:17:26

সিলভা ফার্মার ইপিএস প্রকাশ

প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা কোম্পানি সিলভা ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড ৩০ জুন,২০১৮ সমাপ্ত হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির আইপিওর আগে ইপিএস হয়েছে ৯৩ পয়সা। আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৩ পয়সা। আর আইপিওর পরে হয়েছে ৭২ পয়সা। একই সময়ে কোম্পানিটির মুনাফা হয়েছে ৯ কোটি ২৯ লাখ টাকা। আগের বছর একই সময় ছিল ৮ কোটি ২ লাখ টাকা। আলোচ্য সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৭ টাকা ১১ পয়সা। আর আইপিওর পরে হয়েছে ১৫ টাকা ৪৭ পয়সা।   [...]বিস্তারিত...
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-10-7 10:12:27

সিলভা ফার্মার লেনদেন ১০ অক্টোবর

সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা প্রতিষ্ঠান সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের লেনদেন আগামী ১০ অক্টোবর, বুধবার শুরু হবে। ওইদিন দুই স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানিটি ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ডিএসইতে কোম্পানিটির ট্রেডিং কোড হবে “SILVAPHL”। আ কোম্পানি কোড হবে ১৮৪৯৩। গত ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির লটারিতে বরাদ্দপ্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে। এর আগে কোম্পনিটি ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে। কোম্পানির লটারির ড্র গত ৩০ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৯ জুলাই থেকে কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল। যা চলে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। বিএসইসির ৬৪৭তম কমিশন সভায় সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু করবে কোম্পানিটি। আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয়, কারখানার ভবন নির্মাণ, ঋণ পরিশোধ এবং গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা শূন্য ৩ পয়সা। উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড ও এসবিএল ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।   [...]বিস্তারিত...
pujibazar.com
Published On - 2018-10-2 05:51:59

আইপিওতে আসছে মীর আখতার হোসাইন: প্যান প্যাসিফিকে রোড শো’র আয়োজন

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার লক্ষ্যে রোড শো’র আয়োজন করেছে মীর আখতার হোসাইন লিমিটেড। আগামী ১৭ অক্টোবর রাজধানীতে প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানিটির রোড শো অনুষ্ঠিত হবে। কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, ওই সন্ধ্যা ৭টায় হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও-এ রোড শো’র আয়োজন করা হয়েছে। আর এতে পুঁজিবাজারের ইলিজিবল ইনভেষ্টরদের অংশগ্রহণ […] The post আইপিওতে আসছে মীর আখতার হোসাইন: প্যান প্যাসিফিকে রোড শো’র আয়োজন appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
pujibazar.com
Published On - 2018-09-27 05:57:52

সিলভা ফার্মাসিটিক্যালসের শেয়ার বিওতে জমা: লেনদেন শুরু শিগগিরই

পুঁজিবাজার রিপোর্ট: প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) লটারিতে বরাদ্দ পাওয়া শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসেবে পাঠিয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি সিলভা ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড। এদিকে, শিগগিরই দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে এ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) সূত্রে জানা গেছে, আজ ২৭ সেপ্টেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার আইপিও লটারিতে […] The post সিলভা ফার্মাসিটিক্যালসের শেয়ার বিওতে জমা: লেনদেন শুরু শিগগিরই appeared first on পুঁজিবাজার.কম.
www.ajkerbazzar.com
Published On - 2018-09-24 08:20:42

তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে সিলভা ফার্মা 

পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনকারী প্রতিষ্ঠান সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, কোম্পানির লটারিতে বরাদ্দপ্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হওয়ার পরেই দুই স্টক এক্সচেঞ্জ লেনদেনের তারিখ চূড়ান্ত করবে। এর আগে কোম্পানির লটারির ড্র গত ৩০ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোম্পানিটির আইপিও শেয়ার কিনতে ২৫.৭৮ গুণ আবেদন জমা পড়েছে। অর্থাৎ কোম্পানিটির আইপিও শেয়ার কিনতে মোট ৭৭২ কোটি ৯৯ লাখ ৯০ হাজার টাকার আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীর আবেদন পড়েছে ৪৮.৯৮ গুণ, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের আবেদন ২০.৫০ গুণ এবং প্রবাসীদের আবেদন পড়েছে ১২.৫২ গুণ। গত ২৯ জুলাই থেকে কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল। যা চলে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। বিএসইসির ৬৪৭তম কমিশন সভায় সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু করবে কোম্পানিটি। আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয়, কারখানার ভবন নির্মাণ, ঋণ পরিশোধ এবং গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে। ৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা শূন্য ৩ পয়সা। উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড ও এসবিএল ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। অর্থসূচক/নাজমুল/জেডআর [...]বিস্তারিত...